আমাদের তৃতীয় বিশ্বের দেশ গুলিতে রক্তস্বল্পতা খুব সাধারণ একটি রোগ। মহিলা এবং বাচ্চাদের ক্ষেত্রে বেশি দেখা দিলেও এটি সব বয়সী মানুষেরই হতে পারে। রক্তে লোহিত কণিকা বা হিমোগ্লোবিন কম থাকাকে রক্তস্বল্পতা বলা হয়। হিমোগ্লোবিন লোহিত রক্তকণীকার ভিতরে একটি প্রোটিন যা দেহে অক্সিজেন প্রবাহিত করে থাকে। বিভিন্ন কারণে রক্ত স্বল্পতা হতে পারে । শরীরে রক্ত স্বল্পতা দেখা দিলে দেখা দিবে বিভিন্ন রকমের সমস্যার । কর্ম ক্ষমতা কমে যাবে । দেহ ক্রমশ দূর্বল হতে থাকবে । এতে করে শরীরে বিভিন্ন ধরনের রোগ বালাই হবার প্রবনতা বেড়ে যাবে ইত্যাদি ইত্যাদি । তাই আজ আমরা জানব এমন পাচ টি খাবার সম্পর্কে যে পাঁচ খাবার দূর করবে রক্ত সল্পতা –

 

যেসব কারণে শরীরে রক্ত স্বল্পতে দেখা দেয়-

  • আয়রনের অভাব
  • ভিটামিন বি১২ এর অভাব
  • ফলিক অ্যাসিডের অভাব
  • অতিরিক্ত রক্তপাত
  • পাকস্থলিতে ইনফেকশন
  • বয়স
  • ধূমপান
  • উচ্চ বিএমআই বিভিন্ন অসুখ ইত্যাদি।

 

যে পাঁচ খাবার দূর করবে রক্ত সল্পতা , চলুন জেনে নেই

বড়াবরের মত এবারও আমরা এলোপ্যাথিক ওষুধ এবং অতিরিক্ত খরচের দিকে না গিয়ে প্রাকৃতিক ভাবে এবং কিছু খাবার এর

মাধ্যমেই এর প্রতিকার সাধনের চেষ্টা করব ।

পালং শাক

পালং শাককে সুপার ফুড বলা হয়। এতে ক্যালসিয়াম, ভিটামিন এ, বি৯, ই, সি, বিটা কারটিন এবং আয়রন রয়েছে। যা রক্ত তৈরি

করে থাকে। আধা কাপ পালং শাক সিদ্ধতে ৩.২ মিলিগ্রাম আয়রন আছে যা মহিলাদের দেহে ২০% আয়রন পূরণ করে থাকে।

 

বিট

বিট আয়রন সমৃদ্ধ খাবার হওয়া খুব অল্প সময়ের মধ্যে এটি রক্ত স্বল্পতা দূর করে দেয়। এটি লোহিত রক্তকণিকা বৃদ্ধি করে। এবং

দেহে অক্সিজেন সরবারহ সচল রাখে।

 

টমেটো

টমেটোতে ভিটামিন সি আছে যা অন্য খাবার থেকে আয়রন শুষে নেয়। এছাড়া টমেটোতে বিটা ক্যারটিন, ফাইবার, এবং

ভিটামিন ই আছে। HNBT প্রতিদিন কমপক্ষে একটি টমেটো খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

 

ডালিম

প্রচুর পরিমাণ আয়রন এবং ভিটামিন সি সমৃদ্ধ একটি ফল হল ডালিম। এটি দেহে রক্ত প্রবাহ সচল রেখে দুর্বলতা, ক্লান্ত ভাব দূর

করে থাকে। নিয়মিত ডালিম খেলে রক্তস্বল্পতা দূর হয়ে যায়। এমনকি প্রতিদিনের নাস্তায় এক গ্লাস ডালিমের রস খেতে পারেন।

 

পিনাট বাটার

আয়রনের আরেকটি উৎস হল পিনাট বাটার। দুই টেবিল চামচ পিনাট বাটারে .৬ মিলিগ্রাম আয়রন পাওয়া যায়। আপানি যদি

পিনাট বাটারের স্বাদ পছন্দ না করেন চিনাবাদাম খেতে পারেন। এটিও শরীরে আয়রন বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

 

উপরের খাবার গুলির দিকে একবার চোখ বুলালেই বুঝবেন এগুলো না দামি,না পাওয়া কষ্টকর । এগুলো আমাদের সকলেরই

হাতের কাছেই পাওয়া যায় । আমরা চাইলেই এগুলো সংগ্রহ করতে এবং আমাদের খাবার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে পারি । এই

খাবার গুলি খেতে যেমন সুস্বাদু পুষ্টিতেও তেমনি ভরপুর । তাই আমাদের সকলেরই উচিৎ এই খাবার গুলিকে প্রতিদিনের খাদ্য

তালিকায় নিয়ে আসা । এতে করে যেমন মুক্তি পাওয়া যাবে রক্ত স্বল্পতার হাত থেকে তেমনি পাওয়া আর অনেক ধরনের উপকার।

 

এছাড়া ডিম, সয়াবিন, বাদাম, সামুদ্রিক মাছ, খেজুর, কিশমিশ ইত্যাদিতে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে যা দেহের রক্ত স্বল্পতা

রোধ করে ।

 

আজ এখানে রক্ত সল্পতা দূর করার জন্য কিছু সচেতন্তা মূলক খাদ্য এবং লেখা তুলে ধরা হল । আশা করি এতে অনেকেরই

উপকার হবে । সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ । পবর্তী পোস্টের জন্য নিয়মিত ভিজিট করুন আমাদের সাইটটি ।