ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল-এমএমসি

ইংরেজিতেঃ Mymensingh Medical College (MMC)

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ বাংলাদেশের অন্যতম পুরোনো এবং স্বনামধন্য একটি চিকিৎসা সেবা প্রতিষ্ঠান । এর গোড়াপত্তন

হয় তৎকালীন ইংরেজ শাসনামলে,১৯২৪ সালে । এটি ময়মনসিংহ শহরে অবস্থিত একটি চিকিৎসা শিক্ষা এবং একই সাথে

সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান । এতে স্নাতক ও স্নাকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষাদানের ব্যবস্থা রয়েছে তবে এটি প্রশাসনিকভাবে ভাবে ঢাকা

বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের অন্তর্ভুক্ত । এই কলেজে প্রতি বছর এমবিবিএস কোর্সের জন্য ২০০ জন শিক্ষার্থী ভর্তী লাভের

সুজোগ পায় । এছাড়াও বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য এখানে মোট ২৫টি আসন সংরক্ষিত থাকে ।

 

এছাড়াও এখানে বিডিএস ডিগ্রিও প্রদান করা হয়ে থাকে । প্রতি বছর প্রায় ৫০ জন শিক্ষার্থী বিডিএস কোর্সে ভর্তি হত্র পারে ।

 

ধরণঃ সরকারি মেডিকেল কলেজ ।

 

অবস্থানঃ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ঢাকা থেকে ১২০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত । এটি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসরকের চড় পাড়া মেডিকেল ড়োডে অবস্থিত । এবং অবশ্যই একটা কথা ময়মনসিংহ কিন্তু এখন দেশের ৮ম এবং একটি সতন্ত্র বিভাগ ।

সাহায্যের জন্য গুগল ম্যাপ লিঙ্ক ।

 

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এর সংক্ষিপ্ত ইতিহাসঃ

ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসনামলে তৎকালীন বাংলার গভর্নরের নামে বাঘমারা এলাকায় প্রতিষ্ঠিত হয় ছোট্ট একটি মেডিকেল স্কুল । যার নাম ছিল “লিটন মেডিকেল স্কুল” । তখন এই প্রতিষ্ঠান থেকে চার বছরমেয়াদী এল.এম.এফ. কোর্স চালু করা হয় । পরবর্তীতে ১৯৬২  সালে প্রায় চল্লিশ বছর পর তৎকালীন পাকিস্তান আমলে এটিকে সম্পূর্ণ মেডিকেল কলেজ হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করা হয় । তখন মাত্র ৩২ জন শিক্ষার্থী নিয়ে কলেজের কার্য্যক্রম শুরু হয় । উল্লেখ্য এই প্রথম ব্যাচের নামকরণ করা হয় “ম-০১” নামে ।

এরপর ধারাবাহিক ভাবে যদি এর উত্থান বা উন্নতি তুলে ধরি, ১৯২৪ লিটন মেডিকেল স্কুল, ১৯৬২ লিটন মেডিকেল স্কুলকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে উন্নীতকরণ । ১৯৭০ ইনডোর স্বাস্থ্যসেবা চালু । ১৯৭২ বাঘমারা হতে বর্তমান অবস্থানে (চরপাড়া) কলেজ স্থানান্তর । এরপর ধারাবাহিক ভাবে ১৯৭৯ তে অর্থোপেডিক্স, ১৯৮১তে ফ্যামিলি প্ল্যানিং বিভাগ, ৮৮ হৃদরোগ বিভাগ, ৯২ সেন্টার ফর নিউক্লিয়ার মেডিসিন অ্যান্ড আলট্রাসাউন্ড প্রতিষ্ঠা, ২০০০ এ প্রথম পোস্টগ্রাজুয়েশন কোর্স চালু, বুঝতেই পারছেন দেশ স্বাধীন হওয়ার পরে উত্তর উত্তর এর শিক্ষা এবং স্বাস্থ্য সেবা পরিধি বেড়েই চলেছে ।

 

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ এর ক্যাম্পাসের সংক্ষিপ্ত বিবরণঃ

শহরের চরপাড়া এলাকায় ৮৪ একর জমি নিয়ে এক বিশাল পরিধির ক্যাম্পাস এটি । মেডিকেল কলেজে যেমন উন্নত চিকিৎসা সেবার ব্যবস্থা রয়েছে ঠিক তেমনি ময়মনসিংহ এলাকার বিশাল জনসংখ্যার জন্য রয়েছে ১৪০০ শয্যাবিশিষ্ট একটি উন্নত হাসপাতাল বিভাগ । যেখান থেকে প্রতি বছর দেশের বিভভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা মানুষ নিয়মিত চিকিৎসা সেবা গ্রহন করে চলেছে। এছাড়াও রয়েছে ছাত্রাবাস, ছাত্রীনিবাস, ব্যাংক, মসজিদ, মিলনায়তন, পরমাণু চিকিৎসা কেন্দ্র, নার্সিং কলেজ ইত্যাদি । শিক্ষানবিস পুরুষ এবং মহীলা চিকিৎসকদের জন্য রয়েছে আলাদা দুটি হোস্টেল । পুরুষদের হোস্টেল “শহীদ ডা. মিলন হোস্টেল” নামে নামাঙ্কিত এবং মহীলাদের জন্য “ইন্টার্নী ডাক্তার মহিলা হোস্টেল” রয়েছে ।

 

ক্যাম্পাসে শিক্ষির্থীদের জন্য রয়েছে সুন্দর সব ক্যান্টিন । এছাড়াও এর একটি আকর্ষনীয় জায়গা হচ্ছে কৃষ্ণচূড়া চত্তর । প্রতিবছর

এখানে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের পাশাপাশি বসন্তবরণ উৎসব ও পহেলা বৈশাখ পালিত হয়ে আসছে ।

 

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অনুষদ এবং বিভাগঃ

আগেই যেমনটি বলেছিলাম, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ বাংলাদেশের অন্যতম স্বনামধন্য একটি চিকিৎসা সেবা প্রতিষ্ঠান ।

কেন এটি দেশের অন্যতম একটি সমৃদ্ধ মেডিকেল কলেজ তা এর চিকিৎসা শিক্ষাদান বিষয়ের দিকে একটু চোখ বুলালেই বুঝা

যাবে । এখানে ছোট বড় মিলিয়ে মোট ৩৬টি বিষয়ে নিয়মিত পাঠদান করা হয়ে থাকে । যার মধ্যে এনাটমি বা শারীরস্থানবিদ্যা

থেকে শুরু করে ডেন্টাল,হৃদরোগ,চক্ষু রোগ,নাক-কান-গলা,শিশু থেকে শুরু করে বার্ন ইউনিট প্রায় সবই রয়েছে । এর মধ্যে

বেশির ভাগ রোগেরই সার্জারি করার ব্যবস্থাও রয়েছে এখানে ।

 

সুতরাং একে পরিপূর্ন একটি মেডিকেল কলেজ বলাই যায় ।

 

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ এর উল্লেখযোগ্য কিছু সংগঠনঃ

  • মেডিসিন ক্লাব
  • সন্ধানী ক্লাব
  • রোটার‍্যাক্ট ক্লাব
  • স্পন্দন ক্লাব
  • ময়মনসিংহ মেডিকেল ডিবেটিং সোসাইটি ক্লাব ইত্যাদি ।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ কৃতি শিক্ষার্থীঃ

দেশের গণ্যমান্য প্রচুর ব্যাক্তির ক্যাম্পাস এটি । যারা এখন দেশ পরিচালনার কাজে নিয়োজিত । তবে একজনের নাম বিশেষ ভাবে উল্লেখ না করলেই নয় । তিনি হচ্ছেন, ভূটানের প্রধানমন্ত্রী ডা. লোটে শেরিং । এটা শুধু ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ এর নয় এটা আমাদের সকলের জন্যই অত্যন্ত গর্বের একটি বিষয় ।

সবশেষে কিছু কথাঃ

বাংলাদেশ তৃতীয় বিশ্বের উন্নয়নশীল একটি দেশ । এখানে কিছু সমস্যা,কিছু সীমা বদ্ধতা থাওকবেই । তারপরো আমাদের এগিয়ে যেতেই হবে । একদিন পৃথীবির বুকে বাংলাদেশকে উন্নত এবং সমৃদ্ধ একটি দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতেই হবে । আর তা করতে হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোকে এগিয়ে নেওয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই ।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ সেই ধারায়ই বেগবান । আশা করব সরকার ও অভ্যন্তরিন প্রশাসন এই বিষয়টিকে আরো বেশি প্রাধান্য দিবেন এবং ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ কে একটি বিশ্ব মানের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করবেন এই আমাদের একান্ত কামনা ।

 

সাথে থাকের জন্য সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ । পরবর্তী আপডেট এর জন্য নিয়মিত ভিজিট করুন এবং আমাদের কোনো রকম উপদেশ অথ্যবা দিক নির্দেশনা দেওয়ার জন্য এই লিংকে ক্লিক করুন । ধন্যবাদ ।

 

আরো বিস্তারিত তথ্য জানার জন্য সকলের উদ্দেশ্যে নিচে কলেজের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট উইকিপেডিয়া  লিংক দিয়ে দিলাম ।

ওয়েবসাইট লিংক ।

উইকিপেডিয়া লিংক ।