পুরুষের যৌন স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা এবং সমাধানের উপায়-আমাদের সমাজে যৌন সমস্যা নিয়ে কথা বলাটা এক ধরনের অভদ্রতা মনে করা হয় এবং আমরাও যতেষ্ট সংকোচ বোধ করি । আর তা যদি হয় পুরুষের ক্ষেত্রে তাহলে তো আর কোনো কথাই নেই ! আসলে এটা ঠিক নয় । যৌন সমস্যাও অন্য সব শারীরিক সমস্যার মতই একটি সমস্যা এবং হতে পারে যে কারো । হ্যা এটা সত্যি যে এটা একটু লজ্জাস্কর ব্যপার । লজ্জাবোধও আমরা সবাই বজায় রাখব । তবে অসুখ হলে সেটার চিকিৎসাও করাব বা করাতে হবে এবং করানো উচিৎ । সুস্থ সুন্দর জীবন যাপনের ক্ষেত্রে যৌন স্বাস্থ্য ঠিক রাখার কোনো বিকল্প নেই ।

আমাদের পুরুষদের মধ্যে যেসব যৌন সমস্যা দেখা যায় তার মধ্যে হাতে গোনা কয়েকটা সমস্যাই কমন । যেমনঃদ্রুত স্খলন এবং উত্তেজনা প্রশমন,যৌনাঙ্গের উত্থান জনিত সমস্যা ইত্যাদি । এখানে একটা কথা বলে রাখি,যৌনতা যদিও শারীরিক একটি বিষয় কিন্তু এতে মানসিক বিষয় গুলোও জড়িত । তাই কোনো সমস্যা হলেই ঘাবড়ে যাওয়ার কিছু নেই । অপেক্ষা করুন,নিজেকে বোঝার চেষ্টা করুন তারপর ব্যবস্থা নিন ।

 

পুরুষের যৌন স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা কি এবং কেন হয় ?

স্বাভাবিক যৌন মিলন যখন কোনো কারনে ব্যহত হয় তখন তাকে যৌন সমস্যা এবং পরবর্তীতে যৌন রোগ হিসেবে চিহ্নিত করা হয় । পুরুষের ক্ষেত্রে একে অনেকে আমরা ধ্বজভঙ্গ বলেও ভর্ৎসনা করে থাকি । যাই হোক, যৌন সমস্যা হলেই যে সেটি যৌন রোগে পরিণত হয়েছে বিষয়টি এমন না ।  পুরুষের ক্ষেত্রে হঠাৎই এমন হয়ে যাওয়া কোনো যৌন রোগের লক্ষন নয়,এটি একটি খুব সাধারন ঘটনা । তবে তা যদি ক্রমাগত চলতেই থাকে এবং নিজেকে বুঝে যদি মনে হয় যে না এটি মানসিক শক্তি দিয়ে আটকে রাখা যাচ্ছে না তখনই আপনার যৌন রোগ হয়েছে বলে ধরে নিতে পারেন । তবে এমন কিছু হলেই নিজ দায়িত্বে ঔষধ খাওয়া শুরু করবেন না । রেজিস্টার্ড ডাক্তারের পরামর্শ নিন ।

নারী পুরুষ উভয়ের ক্ষেত্রেই যৌন সমস্যা দুই কারণেই হতে পারে,অর্থাৎ মানসিক এবং শারীরিক । যৌনতা যেহেতু আর সব রোগের মতই সাধারন একটি রোগ তাই এর প্রভাবও দুই দিকেই রয়েছে । বিভিন্ন শারীরিক এবং মানসিক কারণেই আপনি আক্রান্ত হতে পারেন এই রোগ গুলিতে । নিচে দুই দিক থেকেই কিছু কারণ দেখানো হল-

শারীরিক কারণঃ

  • হৃদরোগ।
  •  রক্তনালী বন্ধ হয়ে যাওয়া।
  • রক্তে কোলেস্টরলের পরিমাণ বেড়ে যাওয়া।
  • ডায়াবেটিস।
  • অতিরিক্ত মেদ।
  • একই সাথে কয়েকটি লক্ষণ (উচ্চ রক্তচাপ, ইনসুলিন ও কোলেস্টরলের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়া এবং কোমরের কাছে মেদ জমা) দেখা দেওয়া ।
  • পারকিনসন রোগ।
  • পেরোনিজ ডিজিজ ।
  • নির্দিষ্ট কিছু ঔষধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ।
  • তামাকের ব্যাবহার ।
  • মদ্যপান ও অন্যান্য নেশাজাতীয় দ্রব্যের ব্যবহার ।
  • প্রোস্টেট বড় হয়ে গেলে/ ফুলে গেলে বা প্রোস্টেট ক্যান্সারের জন্য চিকিৎসা করানোর ফলে ।

 

মানসিক কারণ

  • হতাশা, দুশ্চিন্তাসহ অন্যান্য মানসিক অশান্তি থাকলে হৃদস্পন্দন, রক্তচাপ এবং অবসাদ বেড়ে যায়, যা আপানার যৌন জীবনে প্রভাব ফেলে।
  • মানসিক চাপ।
  • সুম্পর্কের অভাব বা সম্পর্কে টানাপোড়েন।
  • আপনি আপনার সঙ্গীর যৌন চাহিদা পূরণ করতে পারছেন না এই ভয় আপনার শারীরিক সমসস্যার জন্য দায়ী হতে পারে।
  • আপনার মানসিক অবস্থা আপনার যৌন জীবনের উপর গুরুতর প্রভাব ফেলে। মানসিকভাবে হাসিখুশি না থাকলে যৌন উত্তেজনাও কমতে শুরু করে।
  • অনেক সময় যৌনতার ব্যাপারে মানুষ উদাসীন হয়ে পড়ে। সে সময় এ ধরনের সমস্যা দেখা দেয়।

উপরের বর্ননা থেকে আমরা যৌন সমস্যার কারণ গুলো সম্পর্কে আমরা অবগত হলাম । এখন চলুন জেনে নেওয়া যাক এই সমস্যা থেকে আমরা কিভাবে পরিত্রান পেতে পারি সে সম্পর্কে-

সমাধানের উপায়ঃ

  • ব্যায়াম করতে হবে বা ওজন নিয়ন্ত্রনে রাখতে হবে।
  • ধূমপান ত্যাগ করতে হবে।
  • মদ্যপান এড়িয়ে চলতে হবে।
  • পুষ্টিকর ও স্বাস্থ্যসম্মত খাবার খেতে হবে।
  • রক্তচাপ ও কোলেস্টরলের পরিমাণ নিয়ন্ত্রনে রাখতে হবে।
  • দুশ্চিন্তা কমিয়ে আনতে হবে এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমাতে হবে ।
  • বেদানা বা ডালিমের জুস উপকারী।
  • হীনমন্যতায় ভুগবেন না।
  • কাছের মানুষের সাথে বিষয়টি নিয়ে কথা বলুন।

কথায় আছে প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ উত্তম । তাই যৌনতা বিষয়ে ন্যূনতম জ্ঞান রাখুন এবং তদনুযায়ী চলার চেষ্টা করুন । দেখবেন এই সমস্যা গুলি এরানো খুব একটা বড় বিষয় নয় । বিনিময়ে আপনি পাবেন সুস্থ সুন্দর একটি যৌন জীবন ।

সাবধানতাঃ

  • এমন কিছু হলে কোনো হাতুড়ে ডাক্তার বা কবিরাজের কাছে যাবেন না ।
  • নিজে নিজে ওষুধ খাবেন না ।