আঙুরের বীজ ২৪ ঘণ্টায় ক্যানসার বিনাশ করবে!

 

ব্রিটিশ মেডিকেল সাময়িকী সম্প্রতি ক্যানসারের চিকিৎসার একটি জনপ্রিয় এবং বহুল ব্যবহৃত পদ্ধতির বেশ কিছু ক্ষতিকর দিক

প্রকাশ করেছে, যা সব সময় মানুষকে সুস্থ করে তোলে না মাঝে মাঝে মৃত্যুর কোলেও ঠেলে দেয়।এ পদ্ধতি গ্রহণ করে কয়েক

দশক ধরে অনেকে মানুষ মারা গেছে।আপনিও হয়তো ভাবেননি এটার মাঝেও এত দোষ লুকিয়ে আছে! ওই চিকিৎসা পদ্ধতিটির

নাম কেমোথেরাপি।যার নাম আমাদের সকলের কাছেই পরিচিত।হাসপাতাল, চিকিৎসা ও ওষুধ ইত্যাদির কাজ মানুষকে বাঁচানো,

মেরে ফেলা নয়।তাই এর জন্য নতুন করে ভাবতে হবে।

 

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার মেডিসিন ও ফিজিওলজি বিভাগের জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক ডক্টর হার্ডিন বি জোনস তার এক

গবেষণায় লিখেছেন, ‘কোমো প্রকৃতপক্ষে কোনো কাজই করে না’।ক্যানসার চিকিৎসা করানো রোগীদের আয়ু নিয়ে পচিশ বছর

ধরে গবেষণা করে তিনি এসব তথ্য খুঁজে পেয়েছেন।ড.জোনস দাবি করেছেন, যেসব রোগী কেমোথেরাপি নেন, তারা প্রকৃত

পক্ষে ব্যথায় মারা যান।অন্য কোনো চিকিৎসা পদ্ধতির চেয়ে কেমো নেওয়া রোগীরা একটু দ্রুত মারা যান।

 

অপর দিকে  ক্যানসার চিকিৎসার জন্য প্রাকৃতিকভাবে প্রতিকারের চিত্র পুরো ভিন্ন। এগুলো সুপার কার্যকরী ও কোনো

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। এই সব প্রাকৃতিক প্রতিকারের পদ্ধতি থেকে চোখ দূরে রেখেছে বিশ্ববাসী। এগুলো মানুষের সামনে নিয়ে

আসা খুবই জরুরি।

 

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্টাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক আঙুরের বীজের উপাদান নিয়ে গবেষণা করতে গিয়ে দেখেছেন, ৭৬

শতাংশ লিউকেমিয়া ও ক্যানসার কোষ ধ্বংস করে আঙুরের বীজ।বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক পরীক্ষাগারও এটা সমর্থন করেছে। পরে

গবষেণাটি আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর ক্যানসার রিসার্চ সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়। এতে দেখা গেছে, আঙুরের বীজে থাকা

উপাদান ক্যান্সারের নিউকোমিয়া কোষকে ধ্বংস করে। আঙুরের বীজের জেএনকে নামের এক ধরনের প্রোটিন থাকে যা

ক্যানসারের জন্য দায়ী কোষগুলোকে দ্রুত ধ্বংস করে দেয় এবং এক সময় ক্যান্সার কে পুরোপুরি প্রতিরোধ করতে সক্ষম হয়।

 

গবেষকদের মতে,আসলে ক্যান্সার চিকিৎসা দেয় এমন প্রতিষ্ঠান গুলো কিছুটা অজ্ঞাতবসত এবং কিছুটা ব্যাবসায় লাভবান হতেই

ক্যান্সারকে ভয়ানক রোগ হিসেবে প্রচার করেন।এক কথায় ক্যান্সার এর অপর নাম মৃত্যু। তবে এ গবেষণা সমর্থন করেছে,

ক্যান্সার সম্পর্কে আমরা যতটা ভাবি,আসলে এটা ততটা বিপজ্জনক রোগ নয়। আমরা যদি সঠিক পন্থায় ও গুরুত্ব দিয়ে ঠিক

চিকিৎসা নিই, তাহলেই মৃত্যুর মধ্যে দিয়ে জীবন শেষ নয় বরং নতুন জীবন লাভ করা সম্ভব। এর আগে ব্রিটিশ ও ইসরায়েলের

গবেষকরা জানান, মানুষ ক্যানসারে নয়, মরে কেমোথেরাপিতে। নতুন এ গবেষণা তাদেরই সমর্থন করল মাত্র।

 

সবার উদ্দ্যেশ্যে,এই তথ্যগুলো নেট ঘেটে বের করে আনা।এতে যথা সম্ভব রেফারেন্সও দেওয়া হয়েছে।তাই কারো সন্দেহ নেট

ঘেটে আর বিস্তারিত জেনে নিতে পারেন। আর এই বিষয়ে এবং চিকিৎসা পদ্ধতি,ব্যবহার পদ্ধতি ইয়তাদি সম্পর্কে জানতে

আমাদের সাথেই থাকুন।ধন্যবাদ।