শুক্রাণুর সংখ্যা বৃদ্ধির পাঁচ উপায়

 

শুক্রাণুর সংখ্যা বৃদ্ধির পাঁচ উপায়-শুক্রাণুর গুণগত মানের হ্রাস ও শুক্রাণুর সংখ্যা কমে যাওয়া সারা বিশ্বজুড়েই এখন একটি কমন সমস্যা হয়ে দাড়িয়েছে । যে সম্পর্কে আমরা অনেকেই ওয়াকিবহাল না । যা খুবই দুশ্চিন্তার একটি বিষয় । আমরা অনেকেই এমনটা মনে করে থাকি যে, আমাদের যৌন চাহিদা এবং বীর্য যথেষ্ট পরিমাণে আছে মানে আমার সব কিছু ঠিক আছে ! কিন্তু প্রকৃত পক্ষে বিষয়টি ঠিক নয় । কারণ এতে করে হয়ত যৌন জীবন সুখের হতে পারে বা স্বাভাবিক থাকতে পারে কিন্তু আপনার পক্ষে বাবা হতে সমস্যা মোকাবিলা করতে হতে পারে অথবা আপনার সন্তান জন্মদানের ক্ষমতা একদমই নষ্ট হয়ে যেতে পারে, কারণ বাবা হওয়ার জন্য শুধু যথেষ্ট পরিমাণ বীর্য থাকলেই হবে না, তাতে থাকতে হবে যথেষ্ট পরিমাণ শুক্রাণুও । যা খুবই ভয়ঙ্কর একটি বিষয় ।

তাই আজ আমরা এখানে বীর্যে কিভাবে শুক্রণু বৃদ্ধি করা যায় এবং এর নষ্ট হয়ে যাওয়া রোধ করা যায় সেই বিষয় নিয়ে আলোচনা করব এবং আপনাদের খুব সহজ কিছু টিপস দিতে চেষ্টা করব । তাহলে চলুন শুরু করা যাক –

 

১. লাল সব্জী বেশি বেশি খান

ওহিও ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিক থেকে প্রকাশিত একটি গবেষণা পত্র অনুযায়ী, খাদ্যে লাইকোপেনের উপস্থিতি ৭০% অবধি স্পার্ম কাউন্ট বাড়িয়ে তুলতে পাড়ে । শুক্রাণুর গতি এবং ঘনত্ব বাড়িয়ে তোলে । লাইকোপেন লাল সব্জী যেমন টম্যাটো, স্টবেরি, চেরি ও লাল ক্যাপসিকমের মধ্যে পাওয়া যায়  ।

 

২. কোলে ল্যাপটপ রেখে কাজ না করা

দীর্ঘক্ষণ ধরে কোলে ল্যাপটপ রেখে কাজ করলে স্পার্ম কাউন্ট কমে যায় । কারণ আমাদের ল্যাপটপ বা মোবাইল ফোন উচ্চ বিদ্যুৎ তরঙ্গ ব্যবহার করে আমাদের সার্ভিস দেয় । সে ক্ষেত্রে মোবাইল ফোন প্যান্টের পকেটে রাখার বিষয়েও আপনাকে সচেতন হতে হবে । এত করে শুক্রাণুর গতি কমে যায় ।  শুক্রাণুর ডিএনএ-তে পরিবর্তন দেখা যায় ।  ল্যাপটপের সঙ্গে যদি WiFi কানেকশন থাকে তাহলে এই সমস্যা বৃদ্ধি পায় ।

 

৩. কম সময় ধরে সাইক্লিং করা

সাইকেল চালানো একটি উন্নত মানের ব্যায়াম হলেও দীর্ঘক্ষণ ধরে সাইকেলে বসে থাকলে শুক্রাণুর উপর তার ক্ষতিকারক প্রভাব পরে । ২০০৯ সালে স্পেনের একটি স্পোর্টস মেডিসিন সংস্থার প্রকাশিত গবেষণা অনুযায়ী দীর্ঘক্ষণ সাইকেলে বসে থাকলে স্পার্মাটোজোয়ার সাধারণ আকার নষ্ট হয় । গড়ে ৩৩ বছর বয়সী স্পেনের ১৫ জন ট্রায়াটলিথসের উপর পরীক্ষা চালিয়ে দেখা গেছে যাঁরা সপ্তাহে ৩০০ কিলোমিটার সাইক্লিং করেন তাঁদের ফার্টিলিটি নিয়ে সমস্যা দেখা দেয় । অর্থাৎ তাদের সন্তান জন্মদানে সমস্যা দেখা দেয় ।

 

৪. বেশি গরমের মধ্যে না থাকা

গবেষণা অনুযায়ী, ৩৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস শুক্রাণু তৈরি হওয়ার আদর্শ উষ্ণতা । এই উষ্ণতা দেহের স্বাভাবিক উষ্ণতার থেকে কিছু কম

। ক্যালিফোরনিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয় টানা তিন বছর গবেষণা করে দেখেছে যে সমস্ত পুরুষরা হট বাথ নেওয়া বন্ধ করেছেন তাঁদের

স্পার্ম কাউন্ট গড়ে ৫০০% বৃদ্ধি পেয়েছে ।

 

৫. কফি খান, কিন্তু পরিমিত পরিমাণে

২০০৩ সালে ব্রাজিলের সাও পাওলো বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ৭৫০ জন প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষের উপর পরীক্ষা করে দেখেছেন কফি

স্পার্মের মোবিলিটি বৃদ্ধি করে । অন্যদিকে, দিনে তিন বা ততোধিকবার কফি খেলে স্পার্মের জেনেটিক মিউটেশন ঘটে । ফলে শুক্রাণুর

ডিম্বাণুকে নিষিক্ত করার ক্ষমতা হ্রাস পায় । তাই কফি খান এবং খাওয়া ভাল তবে পরিমিত পরিমাণে খাওয়া উত্তম ।

 

উপরে শুক্রাণুর গুণগত মান এবং সংখ্যা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে সহায়ক কিছু খাবার তথা উপায় সম্পর্কে কিছু তথ্য সংক্ষেপে তুলে ধরা হল । এছাড়াও ইন্টারনেটে এমন আর অনেক তথ্য আপনি পেতে পারেন ।

 

এছাড়াও আরো কিছু সর্ট টিপস নিচে দেওয়া হল-

  1. নিয়মিত ব্যায়াম করুন এবং ঘুমান ।
  2. ধুমপান ত্যাগ করুন ।
  3. অতিরিক্ত অ্যালকোহল এবং ড্রাগ ব্যবহার এড়িয়ে চলুন ।
  4. পর্যাপ্ত ভিটামিন ডি যুক্ত খাবার খান ।
  5. অশ্বগন্ধা খুবই কার্য্যকর এক্ষেত্রে ।
  6. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খান ।
  7. মেথি দারুণ উপকারী, তাই মেথির পরিপূরক নিতে পারেন ।
  8. নির্দিষ্ট কিছু ওষুধ এড়িয়ে চলুন । (এ সম্পর্কে পরবর্তীতে বিস্তারিত পোস্ট দেওয়া হবে ) ।

আশা করি এতে অনেকেই উপকৃত হবেন । এমন আরো তথ্য সমৃদ্ধ পোস্ট পেতে আমাদের সাইটটি নিয়মিত ভিজিট করুন ।