পুরুষের যৌন স্বাস্থ্য বিষয়ক ৫টি পরামর্শ

পুরুষের যৌন স্বাস্থ্য বিষয়ক ৫টি পরামর্শ-যৌনতা এমন একটি বিষয় যা চলে আসছে পৃথিবীর আদিকাল থেকেই । আর এই প্রক্রিয়া চালু রয়েছে বলেই প্রতিদিন কারো না কারো কোল জুড়ে আনন্দের ফোয়ারা নিয়ে হাজির হয় নতুন কোনো শিশু । এই প্রকৃয়া মানব ইতিহাসের প্রথম থেকেই চলে আসছে, চলছে এবং চলবে ।

তবে যৌনক্রিয়া যে শুধু মাত্র সন্তান জন্মদানের জন্যই প্রকৃতি আমাদের মাঝে স্থাপন করে দিয়েছে ঠিক তা নয় । এটি মানব মানবীর উপভোগ্যেরও একটি বিষয় । সকল নর নারীরই একটি সুপ্ত বাসনা থাকে যৌনতাকে উপভোগ করবার কিন্তু দেখা যায় সঙ্গীর অপরাগতার কারণে তা আর হয়ে উঠে না ।

আর এটা দীর্ঘ দিন চলতে থাকলে বৈবাহিক জীবন হয়ে ওঠে বিষিয়ে । আর এখান থেকেই শুরু হয় পরোকিয়া । শুধু এখানেই

থেমে থাকে না ধিরে ধিরে এটা অনেক ক্ষেত্রেই ক্রাইমে পর্যন্ত রূপ নেয় ।

এখান থেকে বাচার অনেক ধরনের উপায়ই রয়েছে তবে এখানে আমরা নির্দিষ্ট কয়েকটি বিষয়ে আলাপ করব, তবে এখানে

আমরা শুধু মাত্র পুরুষদের জন্য প্রয়জনীয় কিছু টিপস তুলে ধরব । তাহলে চলুন ঝটপট কয়েকটি টিপস জেনে নেওয়া যাক-

 

যৌন জীবনকে উপভোগ্য করতে পুরুষের জন্য সাধারন কিছু টিপসঃ

০১) নিয়মিত পুরুষাঙ্গ পরিষ্কার ও শুকনো রাখুন ।  আমাদের প্রতিদিনের কাজ কর্মের ফলে শরীরে ধুলা, ময়লা, ঘাম ইত্যাদি

জমে। আর এগুলো পরিষ্কার অতি আবশ্যক । এছারাও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন না করলে বিভিন্ন ধরনের চর্ম রোগও হতে পারে যা

আপনার যৌন জীবনের জন্য মারাত্মক হুমকি স্বরুপ ।

 

০২) যৌন কার্য সম্পাদনের পর পরই সাবান দিয়ে পুরুষাঙ্গ পরিষ্কার করে নিন । এতে যৌনরোগ সংক্রমণের সম্ভাবনা কমে যায় ।

এরপর টিস্যু বা পরিষ্কার কোমল কাপড় দিয়ে আলতো করে মুছে নিন ।

 

০৩) আমাদের ছেলেদের মাঝে একই অন্তর্বাস দিনের পর দিন পড়ার একটি বাজে অভ্যেস রয়েছে । যা কোনো ভাবেই উচিৎ

নয়। প্রতিদিন আপনার অন্তর্বাস পরিবর্তন করুণ । এতে করে ঘাম থেকে তৈরী হওয়া দুর্গন্ধ এবং চর্ম রোগ হবে না । এর জন্য

ভালো ব্রান্ডের, ভাল ফেব্রিক্সের অন্তর্বাস পড়ুন । ফলে আপনার এবং আপনার সঙ্গিনী কারোরই যৌনক্রিয়ায় ব্যাঘাত ঘটবে না

এবং সেটি উপভোগ্য হবে।

 

০৪) যদি আপনার পুরুষাঙ্গে কোনও প্রকার ফোস্কা, ফুসকুড়ি, দাগ বা লাল-ভাব হওয়া পরিলক্ষিত হয় তাহলে সেগুলো

ইনফেকশন বা বড়সড় কোনও রোগের লক্ষণ হতে পারে । এমতাবস্থায় কনডম না ব্যবহার করে কখনোই সহবাস করবেন না ।

আর এই সমস্যা যদি বেড়েই চলে তবে দেরি না করে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন ।

 

০৮) বর্তমান সময়ে ওরাল যৌনতা বেশ জনপ্রিয় তাই অবশ্যই যৌনাঙ্গ সুগন্ধি করে রাখুন । এতে ঘামের কটু গন্ধ থাকবে না ফলে

নিজেরও ভালো লাগবে সাথে আপনার সঙ্গিনীরও । তবে সতর্ক থাকুন কখনো পুরুষাঙ্গে ডিওডরেন্ট স্প্রে ব্যবহার করবেন না ।

এর জন্য স্পেশালি তৈরী স্প্রে কিনে নিন অথবা হারবাল সুগন্ধি সংগ্রহ করে নিন ।

 

যৌনক্রিয়ায় পুরুষের অবশ্য পালনীয় দায়িত্বঃ

একটা কথা খুব ভাল করে মনে রাখবেন, স্বামী-স্ত্রী’র বন্ধন খুবই পবিত্র এবং ভালোবাসার । তাই যৌনাবেগে পড়ে স্ত্রীর উপর

কখনোই জোড় জবরদস্তি করবেন না । স্ত্রী বা সঙ্গীনির অসুবিধা হচ্ছে কি না বা তার শারীরিক অবস্থা ভাল কি না সে বিষয় আগে

জেনে তারপর অগ্রসর হন ।

আর এখানে মুড বা ইচ্ছা নামক বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ । যদি ইচ্ছে না থাকে তাহলে বিরত থাকাই শ্রেয় । কেননা, ধর্ষক এবং

ভাল স্বামীর মাঝে একটাই পার্থক্য তা হচ্ছে ইচ্ছার মূল্যায়ন । তাই এই বিষয় গুলো খুব খেয়াল রাখবেন মিলনের আগে ।

 

সাথে থাকার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ । পোস্টটি কেমন লাগল তা কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না ।